অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস থেকে বিপদ

blog-pic-280

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকলে অনেক ধরনের বিপদ হয়। এ রোগ ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখাই চিকিৎসার লক্ষ্য। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না রাখলে যেসব মারাত্নক উপসর্গ অথবা জটিলতা দেখা দিতে পারে তা জেনে রাখা ভালো।
১. পক্ষাঘাত
২. হৃদরোগ
৩. পায়ে পচনশীল ক্ষত
৪. চক্ষুরোগ
৫. মূত্রাশয়ের রোগ
৬. প্রস্রাবে প্রোটিন বের হওয়া
৭. পাতলা পায়খানা
৮. যক্ষ্ণা
৯. মাড়ির প্রদাহ
১০. চুলকানি
১১. ফোঁড়া
১২. খোসপাঁচড়া
১৩. যৌন ক্ষমতা কমে যাওয়া
১৪. গর্ভবতী নারীদের ক্ষেত্রে :
– বেশি ওজনের শিশু জন্ম হওয়া
– মৃত শিশুর জন্ম হওয়া
– অকালে সন্তান প্রসব
– জন্মের পরপর শিশুর মৃত্যু
– শিশুর নানা ধরনের জন্মগত ত্রুটি দেখা দেওয়া ইত্যাদি।

ডায়াবেটিস রোগীদের আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় মেনে চলা উচিত :
ক. রোগীদের ডায়াবেটিস সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রাখা ছাড়াও শরীরের ওজন বাঞ্ছিত ওজনের কাছাকাছি রাখা উচিত।
খ. ডায়াবেটিস রোগীদের উচ্চ রক্তচাপ দেখা দিলে তাদের রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখা প্রয়োজন। ভিন্ন ভিন্ন ভাবে এ দুটো রোগ থেকে যেসব জটিলতা দেখা দেয় এ দুটো একত্রে হলে তারচেয়ে জটিলতা আরও বেশি হয়।
গ. ডায়াবেটিস রোগীদের কিছুতেই ধূমপান করা উচিত না। ডায়াবেটিসের সাথে ধূমপান যুক্ত হলে রোগের জটিলতা অনেক গুণ বেড়ে যায়।

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত নারীদের জন্যে জ্ঞাতব্য :
ডায়াবেটিক নারী যদি সন্তান ধারণ করতে চান, তবে গর্ভবতী হবার পূর্বে অবশ্যই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে। চিকিৎসকদের সুনির্দিষ্ট পরামর্শ ছাড়া ডায়াবেটিক নারীদের কোনোমতেই গর্ভবতী হওয়া উচিত হবে না। গর্ভকালীন তাকে অবশ্যই ইনসুলিনের সাহায্যে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। গর্ভকালীন সময়ে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের মুখে খাবার ওষুধ খাওয়া উচিত।

ডক্টোরোলা ডট কম (www.doctorola.com) প্রচারিত সকল তথ্য সমসাময়িক বিজ্ঞানসম্মত উৎস থেকে সংগৃহিত এবং এসকল তথ্য কোন অবস্থাতেই সরাসরি রোগ নির্ণয় বা চিকিৎসা দেয়ার উদ্দেশ্যে প্রকাশিত নয়। জনগণের স্বাস্থ্য সচেতনা সৃষ্টি ডক্টোরোলা ডট কমের (www.doctorola.com) লক্ষ্য।

দেশজুড়ে অভিজ্ঞ ডাক্তারদের খোঁজ পেতে ও অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে ভিজিট করুন www.doctorola.com অথবা কল করুন 16484 নম্বরে।

Comments are closed.