শিশুর স্কার্ভি

blog-pic-273

ভিটামিন সি মানবদেহের জন্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। ভিটামিন সি-এর অভাবে যে রোগটি হয় তার নাম স্কার্ভি।

কোন বয়সে বেশি হয়?
সাধারণত শিশুর ৬ মাস থেকে ২ বছর বয়স পর্যন্ত এ রোগটি বেশি হয়।

কী কী উপসর্গ থাকে?
১. শিশু অল্পতেই বিরক্ত হয়
২. খাবারে অরুচি দেখা দেয়
৩. শিশুকে ধরলেই কান্নাকাটি শুরু করে দেয় (যেমন : পোশাক পরানোর সময়, গোসল করানোর সময়)
৪. সারা শরীরের সবখানেই বিশেষত পায়ে স্পর্শ করলে শিশু ব্যথা পায়।
৫. মাড়িতে নীলচে-বেগুনি বর্ণের ফোলা দেখা যায়।
৬. শরীরের বিভিন্ন জায়গা থেকে রক্তপাত, যেমন : প্রস্রাব, পায়খানার সাথে।
৭. ক্ষত শুকাতে দেরি হওয়া।

কীভাবে রোগ নির্ণয় করা হয়?
রোগের বিস্তারিত ইতিহাস, শারীরিক পরীক্ষা এবং হাত/পায়ের এক্সরে করে এ রোগ নিশ্চিত করা হয়।

কীভাবে চিকিৎসা করা হয়?
২০০ মিলিগ্রাম ভিটামিন-সি প্রতিদিন খেতে দেওয়া হয় কয়েক সপ্তাহের জন্যে। টমেটো বা কমলার জুসও অনেক কার্যকরী।

কীভাবে প্রতিরোধ করা যায়?
১. বেশি বেশি ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া। যেমন : পেয়ারা, আমলকি, টমেটো, কমলা, সবুজ শাকসবজি ইত্যাদি।
২. জন্মের প্রথম ৬ মাস শিশুকে শুধু মায়ের বুকের দুধ খাওয়ানো। যেসব মা শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ান তাদের প্রতিদিন ১০০ মিলিগ্রাম করে ভিটামিন সি  খাওয়া উচিত।

ডক্টরোলা ব্লাড ডোনার ডাটাবেজে রক্তদাতা হিসেবে সাইন আপ করুন, লিঙ্কঃ https://goo.gl/qe9pSi

দেশজুড়ে অভিজ্ঞ ডাক্তারদের খোঁজ পেতে ও অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে ভিজিট করুন www.doctorola.com অথবা কল করুন 16484 নম্বরে।

Comments are closed.