কীভাবে বুঝবেন আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আছে?

blog-pic-302

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আছে কি না বোঝার উপায় হচ্ছে রক্তের শর্করার (গ্লুকোজ) মাত্রা পরীক্ষা করে দেখা। যদি খালি পেটে রক্তের শর্করার মাত্রা ৬.১ মিলিমোল/লিটার থাকে এবং খাওয়ার পর ৮.০ মিলিমোল/লিটার পর্যন্ত হয়, তবে ডায়াবেটিস খুব ভালো নিয়ন্ত্রণে আছে বলে মনে করতে হবে।

আর খাবারের পর রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা ১০.০ মিলিমোল/লিটার পর্যন্ত হলে ডায়াবেটিস মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে মনে করতে হবে। রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা এর চেয়ে বেশি হওয়ার অর্থ হলো ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে নেই। তবে HbA1c পরীক্ষার মাধ্যমে ডায়াবেটিস গত ৩ মাস যাবত সঠিক নিয়ন্ত্রণে ছিল কি না তা জানা যায়। HbA1c যদি ৬.৫% পর্যন্ত থাকে, তবে ডায়াবেটিস ভালো নিয়ন্ত্রণে আছে বলে নিশ্চিত হওয়া যায়।

এখন আমরা হিমোগ্লোবিন এ১সি (HbA1c) সম্পর্কে ধারণা নেয়া যাক:

রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নির্ধারণ ছাড়াও অন্য একটি পরীক্ষার মাধ্যমে ডায়াবেটিসের অবস্থা সম্পর্কে জানা যায়। আমাদের রক্তের লোহিত রক্ত কণিকায় রয়েছে হিমোগ্লোবিন নামক একটি রাসায়নিক উপাদান। এই হিমোগ্লোবিনের গ্লোবিন নামক প্রোটিনের সাথে রক্তের কিছু গ্লুকোজ ধীরে ধীরে সংযুক্ত হয়। এইভাবে যে স্থায়ী পদার্থটি তৈরি হয়, তার নাম গ্লাইকোসাইলেটেড হিমোগ্লোবিন বা হিমোগ্লোবিন এ১সি (HbA1c)। রক্তে এই গ্লাইকোসাইলেটেড হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ নির্ভর করে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রার উপর।

সুতরাং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকলে গ্লুকোজ বেড়ে যায় এবং সাথে সাথে বেড়ে যায় HbA1c। আর একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো রক্তের লোহিত কণিকাগুলো যেহেতু গড়ে ১২০ দিন বেঁচে থাকে, সেজন্যে HbA1c আমাদেরকে বিগত ৩-৪ মাসের রক্তের গ্লুকোজের মাত্রার গড় হিসেব বলে দেয়। সাধারণত HbA1c ৬.৫% বা তার কম থাকলে ডায়াবেটিস স্বাভাবিক আছে বলে ধরে নেয়া যায়।

খালি পেটে রক্তের গ্লুকোজ :
ভালো : ৪.৪-৬.১
প্রান্তসীমা : ৭.৮ বা তার চেয়ে কম
খারাপ : >৭.৮

খাবারের পর রক্তের গ্লুকোজ :
ভালো : ৪.৪-৮.০
প্রান্তসীমা : ১০ বা তার চেয়ে কম
খারাপ : > ১০.০

HbA1c:

ভালো : <৬.৫
প্রান্তসীমা : ৭.৫ বা তারচেয়ে কম
খারাপ : >১০.৫

ডক্টরোলা ব্লাড ডোনার ডাটাবেজে রক্তদাতা হিসেবে সাইন আপ করুন, লিঙ্কঃ https://goo.gl/qe9pSi

ডক্টোরোলা ডট কম (www.doctorola.com) প্রচারিত সকল তথ্য সমসাময়িক বিজ্ঞানসম্মত উৎস থেকে সংগৃহিত এবং এসকল তথ্য কোন অবস্থাতেই সরাসরি রোগ নির্ণয় বা চিকিৎসা দেয়ার উদ্দেশ্যে প্রকাশিত নয়। জনগণের স্বাস্থ্য সচেতনা সৃষ্টি ডক্টোরোলা ডট কমের (www.doctorola.com) লক্ষ্য।

দেশজুড়ে অভিজ্ঞ ডাক্তারদের খোঁজ পেতে ও অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে ভিজিট করুন www.doctorola.com অথবা কল করুন 16484 নম্বরে।

1 Comment

  1. jahurul hoque says:

    আলহামদুলিল্লাহ, অনেক কিছু জানতে পারলাম।