Not Available Date for this Advertisement

ভুল ধারনা: “ঝাল মসলাযুক্ত খাবারে আলসার হয়”

spicy food

দেশের জনগনের স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে প্রতিদিন আমাদের ব্লগে সচেতনতা মুলক পোস্ট শেয়ার করা হয়। আজ বেশী মসলাযুক্ত খাবার নিয়ে প্রচলিত ভুল তথ্য ও করনীয় নিয়ে আলোকপাত করছি।

# ভুল ধারনা: “ঝাল মসলাযুক্ত খাবারে আলসার হয়”
সঠিক তথ্যঃ
পাকস্থলির আলসার এর সবচেয়ে বড় কারন হল Helicobacter Pylori ব্যাক্টেরিয়া দ্বারা ঘটিত ইনফেকশন। এর পরের কারনটি হচ্ছে বিভিন্ন ব্যথা নিবারক ওষুধ (যেমনঃ এসপিরিন, ইবুপ্রফেন, ন্যাপ্রোক্সেন, ডাইক্লোফেনাক ইত্যাদি) নিয়ন্ত্রনহীন ভাবে খাওয়া। অপরদিকে Helicobacter Pylori ঘটিত আলসার নিরাময় এর জন্য ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী নির্দিষ্ট সময় ও ডোজে নির্দিষ্ট এন্টিবায়োটিক সেবন করা প্রয়োজন। ঝাল মসলাযুক্ত খাবার আলসার সৃষ্টি করে না তবে যাদের আলসার আছে তাদের ক্ষেত্রে বুক জ্বালাপোড়া বাড়াতে পারে।

পেটের আলসার হয়েছে বুঝবেন কিভাবে?
# রোগের সবচেয়ে সাধারণ উপসর্গ হলো তীব্র ব্যথা
# নাভী থেকে শুরু করে বুকের হাড় পর্যন্ত এই ব্যথা অনুভূত হয়
# ব্যথা কয়েক মিনিট থেকে কয়েক ঘণ্টা পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে
# পাকস্থলী খালি থাকলে ব্যথা আরো বেশি অনুভূত হয়
# খাবার খেলে বা এসিডের ওষুধ খাওয়ার ফলে সাময়িকভাবে ব্যথার উপশম হয় আবার ক্ষুদ্রান্তের আলসার বা ঘাতে খেলেও ব্যথা বাড়ে
# ব্যথা চলে গিয়ে কিছু দিন বা কয়েক সপ্তাহের জন্য আবার ফিরে আসে

অন্যান্য লক্ষণ ও উপসর্গঃ
# লাল অথবা কালো রংয়ের রক্ত বমি
# পায়খানার সাথে গাঢ় রংয়ের রক্ত যাওয়া অথবা পায়খানার রং কালো অথবা আলকাতরার রংয়ের মতো হওয়া।
# বমি বমি ভাব অথবা বমি হওয়া।
# হঠাৎ করে শরীরের ওজন কমে যাওয়া।
# খাবারে রুচির পরিবর্তন হওয়া।

ডক্টোরোলা ডট কম (www.doctorola.com) প্রচারিত সকল তথ্য সমসাময়িক বিজ্ঞানসম্মত উৎস থেকে সংগৃহিত এবং এসকল তথ্য কোন অবস্থাতেই সরাসরি রোগ নির্ণয় বা চিকিৎসা দেয়ার উদ্দেশ্যে প্রকাশিত নয়। জনগণের স্বাস্থ্য সচেতনতা সৃষ্টি ডক্টোরোলা ডট কমের (www.doctorola.com) লক্ষ্য।

দেশজুড়ে অভিজ্ঞ ডাক্তারদের খোঁজ পেতে ও অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে ভিজিট করুন www.doctorola.com অথবা কল করুন 16484 নম্বরে।

Comments are closed.