থ্যালাসেমিয়া নিয়ে কিছু তথ্য

blog-pic-285

থ্যালাসেমিয়া একধরনের বংশগত রোগ। রক্তে লোহিত কণিকার হিমোগ্লোবিনে ত্রুটির জন্য থ্যালাসেমিয়া হয়। পিতা-মাতা থেকে সন্তানদের মধ্যে জিন(GENE) এর মাধ্যমে থ্যালাসেমিয়া প্রবেশ করে। পিতা-মাতা উভয়েই থ্যালাসেমিয়া জিনের বাহক হলে শিশুর থ্যালাসেমিয়া হবার সম্ভাবনা থাকে। পিতা মাতার একজন বাহক হলে এবং অন্যজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষ হলে সন্তানদের থ্যালাসেমিয়া হবার সম্ভাবনা নেই।

হিমোগ্লোবিনের ত্রুটির বিভিন্নতার জন্য অনেক ধরনের থ্যালাসেমিয়া দেখা যায়, যেমনঃ বিটা থ্যালাসেমিয়া, আলফা থ্যালাসেমিয়া, হিমোগ্লোবিন ই, হিমোগ্লোবিন এস, হিমোগ্লোবিন সি, হিমোগ্লোবিন ডি পাঞ্জাব ইত্যাদি। আবার অসুখের তীব্রতা অনুযায়ী থ্যালাসেমিয়া তিন ধরনের হয়, যেমনঃ বিটা থ্যালাসেমিয়া মেজর, থ্যালাসেমিয়া ইন্টারমেডিয়া, বিটা থ্যালাসেমিয়া মাইনর বা বিটা থ্যালাসেমিয়া মাইনর/ট্রেইট(বাহক)।

বিটা থ্যালাসেমিয়া মেজরের লক্ষণঃ
সাধারণত শিশুর তিন মাস বয়স থেকে আঠারো মাস বয়স পর্যন্ত এ রোগের লক্ষণগুলো দেখা যায়। শিশু রক্ত শূন্যতায় ভুগে-রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ ৩-৫ গ্রাম/ডেসিলিটারে নেমে আসে, শারীরিক দূর্বলতা, বয়স অনুযায়ী বৃদ্ধি না হওয়া, খেতে না পারা, বমি ভাব, জন্ডিস, পেট বড় হয়ে যাওয়া, মুখমণ্ডলের পরিবর্তন। থ্যালাসেমিয়া ইন্টারমেডিয়াতে উপসর্গগুলো অতটা মারাত্মক আকার ধারণ করে না। রোগের লক্ষণ শিশুদের মাঝে ২-৬ বছর বা আরো পরে শিশুদের মাঝে প্রথম দেখা দেয়। বিটা থ্যালাসেমিয়া মাইনর/ট্রেইট ব্যক্তিদের সামান্য রক্ত শুন্যতা থাকতে পারে। এছাড়া এদের অন্য কোন উপসর্গ থাকে না তবে তারা সুস্থ বহনকারী (বিটা থ্যালাসেমিয়া জিন বহনকারী)। পরবর্তীতে সন্তানদের মধ্যে থ্যালাসেমিয়া জিন প্রবেশ করার সম্ভাবনা থাকে।

কিভাবে জানা যাবে থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত বা থ্যালাসেমিয়ার বাহকঃ
হিমোগ্লোবিন ইলেক্ট্রোফোরেসিস পরীক্ষার মাধ্যমে থ্যালাসেমিয়ার বাহক বা আক্রান্ত ব্যক্তিকে সণাক্ত করা যায়। চিকিৎসাঃবোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টেশন বা অস্থি মজ্জা প্রতিস্থাপন বিটা থ্যালাসেমিয়া মেজরের একমাত্র চিকিৎসা। এছাড়া রক্তশূন্যতার জন্য নিয়মিত রক্ত সঞ্চালনের পাশাপাশি লৌহ অপসারণকারী ওষুধ(IRON CHELATING) দিয়ে চিকিৎসা করা হয়। বারবার রক্ত পরিসঞ্চালনের ফলে প্লীহা(SPLEEN) অতিমাত্রায় আকৃতিতে বৃদ্ধি পেলে প্লীহা (SPLEEN) অপসারণ করা হয়(SPLENECTOMY)।

 থ্যালাসেমিয়া রোগীরা কখন নিয়মিত রক্ত গ্রহণ শুরু করবে?
রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ ৭ গ্রাম/ডেসিলিটারের কম হলে নিয়মিত রক্ত গ্রহণ করতে হবে এবং হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ ৯-১০.৫ এর উপর রাখতে হবে। শিশুর বৃদ্ধির হার উল্লেখযোগ্য পরিমাণে কমে গেলে। মুখমণ্ডলের অস্থির পরিবর্তন হলে। হৃৎপিণ্ডের বিভিন্ন পার্শপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলেথ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধ করা সম্ভব
স্ক্রিনিং টেস্ট হিমোগ্লোবিন ইলেক্ট্রোফোরেসিস এবং অন্যান্য পরীক্ষার মাধ্যমে থ্যালাসেমিয়ার বাহক চিহ্নিত করা এবং তাদের প্রত্যেককে জেনেটিক কাউন্সেলিং করা। প্রি ন্যাটাল ডায়াগনসিস-থ্যালাসেমিয়ার জিন বহনকারী মহিলা গর্ভবতী হলে পরীক্ষার মাধ্যমে গর্ভের সন্তানের থ্যালাসেমিয়া আছে কিনা জানা যায় এবং ব্যবস্থা গ্রহণ করা যায় থ্যালাসেমিয়া জিনের বাহক ব্যক্তি বিবাহ পূর্ব রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত হয়ে সঙ্গী নির্বাচন করতে হবে।
ডক্টোরোলা ডট কম (www.doctorola.com) প্রচারিত সকল তথ্য সমসাময়িক বিজ্ঞানসম্মত উৎস থেকে সংগৃহিত এবং এসকল তথ্য কোন অবস্থাতেই সরাসরি রোগ নির্ণয় বা চিকিৎসা দেয়ার উদ্দেশ্যে প্রকাশিত নয়। জনগণের স্বাস্থ্য সচেতনতা সৃষ্টি ডক্টোরোলা ডট কমের (www.doctorola.com) লক্ষ্য।
 
দেশজুড়ে অভিজ্ঞ ডাক্তারদের খোঁজ পেতে ও অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে ভিজিট করুন www.doctorola.com অথবা কল করুন 09 606 707 808 নম্বরে।

11 Comments

  1. Mahmodul Hassan says:

    Dear, my mother is a Beta Thalassaemia trait/carrier. Her Hb-electrophoresis report is Hb A 95.1% and Hb A2 4.9%. What do you suggest for her farther treatment, please suggest.

    • She has Beta Thalassemia minor as she has HbA2 4.9% (though it is more than normal but not so much). If she has any sign symptoms that means any health problem she needs treatment otherwise not necessary. But it will be better if you keep her under any doctor’s observation. Go for regular check up.

    • Admin says:

      Thalassaemia trait / carrier usually does not show any symptoms . So they do not need any treatment for this. But you have to be careful if your mother shows any symptom or not . Usually thalassaemia carriers suffer from anaemia..So , please check the hemoglobin level of your mother. If she is anemic , then you have to give her iron supplement. Better consult with a medicine specialist / hematologist . Thalassaemia carriers are not in danger like the thalassaemia patients, so no need to worry.

  2. muhammad Iftekhar says:

    i want to know about piles.

  3. kaberi monir says:

    আমি একজন থ্যালাসেমিয়ার ক্যারিয়ার। বয়স ৩২।আমার মেয়ের বয়স ৯, সে থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত। আমার জন্যে কি কোন চিকিৎসা গ্রহণ করা প্রয়োজন?

    • আপনি ফলিক এসিড খেতে পারেন , তবে বেশি ভাল হয় যদি আপনি একজন ডাক্তারকে দেখান, সেক্ষেত্রে কিছু পরীক্ষা করে দেখা যাবে আপনার হিমোগ্লোবিন কেমন আছে, আপনার কি রক্ত প্রয়োজন কি না। বা আপনার বিশেষ কোন চিকিৎসার প্রয়োজন কি না।

    • Admin says:

      থ্যালসেমিয়ার কারিয়ার এর সাধারণত কোন রকম চিকিৎসা দরকার হয় না। তবে আপনার যদি রক্ত কম থাকে, বা অন্য কোন অসুবিধা বোধ করেন তবে একজন ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করবেন।

  4. আমার ইলেক্টরোফরেসিস রিপোর্টে সি এস এইচ লেবলেটরিতে বলেছেন হিমুগ্লুবিন ই ট্রেইড,
    অন্য আরেকটা ডায়াগনস্টিকের রিপুর্ট দেওয়া হল
    Hb A 34.9
    Hb F 10.8
    Hb E 48.2
    Hb A2 6.1
    আমি জানতে চাই আমার কি মাইনর থ্যালাসেমিয়া নাকি মেজর

    • Admin says:

      আপনার রিপোর্ট দেখে মনে হচ্ছে আপনার থ্যালাসেমিয়া মেজর না। তবে মাইনর কিনা সেটিও অনেক কিছুর উপর নির্ভর করবে। আপনাকে অবশ্যই রিপোর্ট কি একজন হেমাটোলজিস্ট অথবা মেডিসিন বিশেষজ্ঞকে দেখিয়ে নিতে হবে। ধন্যবাদ ।

  5. Hirok mondal says:

    আমি বিটা থ্যালাসেমিয়া ক্যারিয়ার। আমার কোন সমস্যা নাই । রক্ত নেওয়া লাগে না । হিমোগ্লবিন 100% আছে। ডাক্তার বলছে কোন রক্ত নেওয়ার দরকার নাই। এখন আমি একজন সুস্থ মেয়েকে বিয়ে করলে ভবিষ্যেত কোন সমস্যা হবে কিনা? আর বাচ্ছা নিলে কোন সমস্যা হবে কি না?

    • সুস্থ মেয়েকে বিয়ে করলে কোন বাচ্চা এর এই রোগ হবার সম্ভবনা নেই,তবে ৫০% সম্ভবনা থাকবে বাহক হবার। আর যদি মা ও বাহক হয় তাহলে ২৫% সম্ভবনা থাকবে আপনাদের বাচ্চা এর এই রোগ থাকার।